মঙ্গলবার, মার্চ ২
শীর্ষ সংবাদ

দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন না করাও দুর্নীতি: জয়নুল আবেদীন

এখানে শেয়ার বোতাম

ঢাকা প্রতিনিধি:: আর্থিকভাবে দুর্নীতিগ্রস্থ হলে বিচারপতিদের জন্য সেটি যেমন দুর্নীতি আবার তাদের ওপর যে সাংবিধানিক দায়িত্ব অর্পিত সেটিও যথাযথভাবে পালন না করাও দুর্নীতি বলে মনে করে জাতীয় আইনজীবী ঐক্যফ্রন্ট নামের সংগঠন।

২৬ আগষ্ট, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির শহীদ শফিউর রহমান মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এমন কথা বলেন সংগঠনটির আহবায়ক জয়নুল আবেদীন।

তিনি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, অতি সম্প্রতি ৩ জন বিচারপতিকে বিচারকায থেকে সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে কি অভিযোগ তা এখনও পরিষ্কার নয়। তার কি আর্থিক দুর্নীতিগ্রস্থ? না অন্য কিছু তা আমরা জানিনা।

জয়নুল বলেন,‘ বিচার বিভাগ থেকে জুডিশিয়াল কাউন্সিলের মাধ্যমে সকল প্রকার দুর্নীতির বিষয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে আমরা কামনা করি। কিন্তু আমরা দেখতে পারছি দেশের প্রধান আইন কর্মকর্তা এবং আইনমন্ত্রী বিষয়টি পরিষ্কার করছেন না। যা দুঃখজনক।

বিচারপতি নিয়োগে একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালা তৈরির দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, আদালতে বিচারপতি নিয়োগ বিধিমালা তৈরী করে নিয়োগ করা একান্ত প্রয়োজন। বিচার বিভাগের দুর্নীতি ও স্বজনপ্রীতি দুর করা এবং সংবিধান মোতাবেক বিচারপতি নিয়োগে বিধিমালা প্রণয়নের দাবিতে’ বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্ট বারসহ সকল জেলা বারে মানববন্ধনের ঘোষণা দেন জয়নুল আবেদীন।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সদস্য মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ আইনজীবীরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ২২ আগস্ট নিজ কার্যালয়ে হাইকোর্ট বিভাগের স্পেশাল অফিসার মোহাম্মদ সাইফুর রহমান বলেন, তিনজন বিচারপতির বিরুদ্ধে প্রাথমিক অনুসন্ধানের প্রেক্ষিতে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে পরামর্শ করে তাদের বিচারকাজ থেকে বিরত রাখার সিদ্ধান্ত নেন প্রধান বিচারপতি। এ বিষয়টি তাদের অবহিত করা হলে পরবর্তীতে তারা ছুটির প্রার্থনা করেন।

হাইকোর্টের তিন বিচারপতি হলেন, বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী, বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হক।


এখানে শেয়ার বোতাম