শনিবার, মে ৮
শীর্ষ সংবাদ

তিস্তাসহ ভারতের সাথে অমীমাংসিত বিষয় নিষ্পত্তি করতে হবে : বাসদ

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 2
    Shares

অধিকার ডেস্ক :: প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফর এবং ভারত-বাংলাদেশের অমীমাংসিত সমস্যার মর্যাদাপূর্ণ সমাধানের দাবিতে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ ঢাকা মহানগর শাখার উদ্যোগে সমাবেশ।

আজ শুক্রবার (৪ অক্টোরব) সকাল সাড়ে ১০টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

ঢাকা মহানগর বাসদ আহ্বায়ক কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য কমরেড রাজেকুজ্জামান রতন, বাসদ ঢাকা মহানগর নেতা জুলফিকার আলী, আহসান হাবিব বুলবুল ও খালেকুজ্জামান লিপন।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেন, ভারত বাংলাদেশের বৃহৎ প্রতিবেশী রাষ্ট্র। বাংলাদেশের তিন দিক ঘিরে আছে। ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ভারতের সাথে বাংলাদেশের বন্ধুত্ব নতুন মাত্রায় উন্নীত হয়েছে বলে দাবি করেন। অথচ তিস্তাসহ ৫৪টি অভিন্ন নদীর পানি বণ্টন, বাণিজ্য ঘাটতি, সীমান্ত হত্যাসহ অসংখ্য সমস্যা দীর্ঘদিন ধরে ঝুলে রয়েছে। এসবের সমাধান তো হচ্ছেই না বরং আসামে এনআরসি করে বাংলাদেশী অনুপ্রেবশকারী আখ্যা দিয়ে পুশব্যাকের চক্রান্ত নতুন আশংকার গহ্বরে বাংলাদেশকে নিক্ষিপ্ত করেছে।

রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারতের অসহযোগিতা এমন কি বিরোধীতায় বিস্ময় প্রকাশ করে নেতৃবৃন্দ বলেন, এই মানবিক সংকটেও ভারত বাংলাদেশের পাশে দাঁড়ায়নি। নেতৃবৃন্দ কাশ্মীরি জনগণের আত্মনিয়ন্ত্রণ অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে কাশ্মীর সমস্যার যুক্তিগ্রাহ্য সমাধানের দাবি জানান।

সমাবেশে নেতৃবৃন্দ নতজানু নীতি ও কথিত বন্ধুর জন্য সবকিছু উজাড় করে দেওয়ার মানসিকতা পরিহার করে স্বাধীন স্বার্বভৌম দেশ হিসেবে মর্যাদা সম্পন্ন পররাষ্ট্রনীতি গ্রহণ এবং তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনে বাংলাদেশের ন্যায্য হিস্যা আদায়ে সচেষ্ট হওয়ার দাবি জানান।

নেতৃবৃন্দ ভারতের আধিপত্যবাদী আগ্রাসী তৎপরতার বিরুদ্ধে এবং ভোট ডাকাতির মাধ্যমে ক্ষমতা দখলকারী মহাজোট সরকারের নতজানু নীতির প্রতিবাদে গণআন্দোলন গড়ে তোলার জন্য সকল বাম-প্রগতিশীল রাজনীতিক দল ও দেশপ্রেমিক জনগণের প্রতি উদাত্ত আহ্বান জানান। সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে তোপখানা রোডে এসে শেষ হয়।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 2
    Shares