শুক্রবার, জানুয়ারি ২২

তাদের কাঁধে অসহায় ২৫ পরিবারের দায়িত্ব

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: ‘সম্পর্কে ভালো থাকুক দেশ’ প্রকল্পের মাধ্যমে ঝালকাঠি সদর উপজেলার বিশখালি নদী চরের জলঘেরা গ্রাম আতাকাঠি চরের ২৫ পরিবারের দায়িত্ব নিয়েছে বেসরকারি সংস্থা বরিশাল ইয়ুথ সোসাইটি এবং দুরন্ত ফাউন্ডেশন। প্রকল্পের আওতায় করোনায় কর্মহীন হয়ে পড়া ও ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত আতাকাঠি চরের এসব পরিবারকে স্বাবলম্বী না হওয়া পর্যন্ত আট ধরনের সুবিধা দেবে সংগঠন দুটি।

করোনা ও আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত এসব পরিবারগুলোকে তৃতীয় মাসেও খাদ্য, পুষ্টি বীজ, নারীদের স্যানিটারি প্যাডসহ দেয়া হয়েছে নানা সহযোগিতা। শনিবার (২৯ আগস্ট) দুপুরে গ্রামে গিয়ে সংগঠনের সদস্যরা এসব ত্রাণ সামগ্রী অসহায় পরিবারগুলোর হাতে তুলে দেন।

চরের অসচ্ছল ২৫টি পরিবারকে গত জুন মাসে প্রথম দফায় সহযোগিতা করে তারা। ২৩ জুলাই দ্বিতীয় মাসে পরিবার প্রতি দুই হাজার টাকার মাসিক বাজার ও শিশুখাদ্য, ঈদের জামা এবং প্রতি পরিবারের জন্য পুষ্টি বাগানের জন্য দেয়া হয়েছে উন্নত বীজ। নারীদের স্বাস্থ্যসেবায় দেয়া হয় স্যানিটারি প্যাড।

দুরন্ত ফাউন্ডেশনের সভাপতি তাসিন মৃধা অনিক বলেন, অসচ্ছল ২৫টি পরিবারকে সাহায্য করবে আমাদের স্পন্সর সচ্ছল ২৫টি পরিবার। যার মাধ্যমে দুই পরিবারের মাঝে তৈরি হবে দৃঢ় একটি সম্পর্ক। এসব সহযোগিতার পাশাপাশি চরের মানুষের কারিগরি শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে তাদের দক্ষ জনগোষ্ঠীতে পরিণত করা হবে। বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত চরের কৃষকদের প্রদান করা হবে বীজ এবং ২৫টি পরিবারের মাঝে হাস-মুরগি প্রদান করার মাধ্যমে তাদের সচ্ছল করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে।


এখানে শেয়ার বোতাম