মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২৬

ঠিকাদারের গাফিলতি, স্থগিত হয়ে আছে চরফ্যাশনের খাল খননের কাজ

এখানে শেয়ার বোতাম

এ আর সোহেব চৌধুরী, ভোলা প্রতিনিধি:: চরফ্যাশন বাজারের একমাত্র খালটি এখন ময়লার ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। ময়লার দুর্গন্ধে হাটা যায়না খাল পারের সড়ক দিয়ে। চরফ্যাশন বাজারের সকল ময়লা আবর্জনায় ভরে গিয়ে পানি চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হয়েছে। ফলে চাষাবাদে পানির অভাবে সেচ দিতে পারছেনা কৃষকরা। এছাড়াও মশা মাছির উপদ্রপ ও দুর্গন্ধে অতিষ্ঠ এখন এলাকাবাসি।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে বাজারের এ খালটিতে অবৈধ দখল ব্যাবস্থাপনায় মাছ মাংস বাজার, কাচা বাজার, হাসপাতাল ও বিভিন্ন কারখানার বর্জ্য
পদার্থে ভরে গিয়েছে এ খালটি। দখল দূষন ও দির্ঘদিন খননের অভাবে খালটি এখন মৃত প্রায়। ফলে দুষন হচ্ছে পরিবেশ।

এলাকাবাসিরা জানান,গতবছর এ খালের খনন কাজ ধরলেও ঠিকাদারের গাফিলতি ও মূল ডিজাইনে কাজ না হওয়ায় প্রকল্পের কাজ স্থগিত হয়ে আছে। এ খালটিতে এক সময় ছিল নদীর স্বচ্ছ পানি। খালটির নাম মান্দারতলি খাল হলেও পৌর বাজার খাল নামেই সকলের কাছে পরিচিত। কালের পরিক্রমায় মান্দারতলি খাল হাড়িয়েছে শান বাধানো ঘাট ,হাড়িয়েছে তার রুপ ও স্বচ্ছ পানির ¯্রােতধারা। চরফ্যাশন বাজারের ঐতিহ্যের
ধারক বাহক এ খালটি এখন মরে গেলেও দেখার যেন কেউ নেই। বাজারে কখনো অগ্নিকান্ড ঘটলে পানি সংকট ও বাজারের আশেপাশে ভালো পুকুর বা জলাশয় না থাকায় অগ্নিনির্বাপনে সময় কেটে যায় ঘন্টার পর ঘন্টা যার জন্য ক্ষতি হচ্ছে সাধারন ব্যাবসায়ি ও জনগন।

এ দিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় বাংলাদেশের ৬৪টি জেলায় ৩৭৫টি উপজেলা ও ২টি সিটি করপোরেশনে ছোট নদী খাল এবং জলাশয়গুলোর পানি ধারন ক্ষমতা বৃদ্ধির মাধ্যমে কৃষিতে সেচ,পানি নিষ্কাশন, খাদ্যশস্য উৎপাদন বৃদ্ধি,মৎস চাষ, জীববৈচিত্র সংরক্ষণ ও পানি ধারন ক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ডেল্টা প্লান ২১০০ প্রকল্পের আওতায় ভোলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের ( ডিভিশন-২) এর মাধ্যমে চরফ্যাশন বাজার খালকে ১০ কিঃ মিঃ পূনঃখননের মাধ্যমে বাজার পূনরুজ্জীবিত করার জন্য টেন্ডারে ১কোটি ১৪ লাখ ৬৯ হাজার টাকা চুক্তিতে মেসার্স রুপালি কন্সট্রাকশন টেন্ডার পেয়ে ২০১৯ সালের জানুয়ারি মাসে বাজার খাল খননেরকাজ শুরু করে। কিন্তু এ কাজ দির্ঘদিন ধরে স্থগিত হয়ে পড়ে থাকাায় জনমনে শঙ্কা দেখা দিচ্ছে আদৌ খাল খননের অগ্রগতি হবে কিনা?

এ বিষয়ে ভোলা পানি উন্নয়ন বোর্ড-২ চরফ্যাশন নির্বাহী প্রকৌশলী হাসান মাহমুদ জানান, ছোট নদী,খাল ও জলাশয়কে খননের মাধ্যমে বৈচিত্র
ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে পানি উন্নয়ন বোর্ড বাজারের খালের খনন কাজ শুরু করেছিল। কিন্তু ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মূল ডিজাইন অনুযায়ি কাজ করতে না
পাড়ায় আমরা বিষয়টি জেলা প্রশাসক মোহাদয়কে অবোগত করা হয়েছে। খুব শিগ্রই খালটির খনন কাজ আবারও শুরু করবো। ২০সালের ডিসেম্বরে এ প্রকল্পের মেয়াদ শেষ প্রশঙ্গে জানান, আমরা প্রকল্পটির মেয়াদ বাড়ানোর জন্য উপর মহলে একটি আবেদন করেছি।


এখানে শেয়ার বোতাম