মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪

ট্রাম্পের করোনার ধাক্কা শেয়ারবাজারে

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 4
    Shares

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সম্প্রতি কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প। এদিকে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরে ধাক্কা খেয়েছে বিশ্বের অর্থনীতি। বিশেষ করে শেয়ারবাজারে এর প্রভাব সবচেয়ে বেশি। নিউইয়র্ক টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শুধু যুক্তরাষ্ট্রে না, এর প্রভাব পড়েছে এশিয়া এবং ইউরোপের শেয়ারবাজারেও।

এশিয়া এবং ইউরোপের বিভিন্ন দেশের বিনিয়োগকারীদের মধ্যে ব্যাপকহারে শেয়ার বিক্রি করে দেওয়ার প্রবণতা দেখা দিয়েছে। এর জের ধরে শেয়ার সূচক নেমে এসেছে। শুক্রবার সকাল থেকেই শেয়ারবাজারে পতন লক্ষ্য করা গেছে।

এশিয়া এবং ইউরোপের আর্থিক বাজার পড়ে গেছে এক শতাংশ। মার্কিন শেয়ার সূচক ডাও জোন্সের আগাম লেনদেন ৪৪০ পয়েন্ট নেমে গেছে। প্রধান তিনটি সূচক ডাও জোন্স কমেছে শূন্য দশমিক ৪৮ শতাংশ, এসঅ্যান্ডডি৫০০ সূচক কমেছে ১ দশমিক ৭ শতাংশ। ন্যাশডাক সূচকের দিনের শুরুতেই পতন ছিল ১ শতাংশ থেকে ২.২ শতাংশ।

বিশ্বের অন্যতম সেরা পুঁজিবাজারে জাপানের নিক্কেইয়ে লেনদেন কমেছে শূন্য দশমিক ৭ শতাংশ। এছাড়া সিডনি, সিঙ্গাপুর ও ব্যাংককে লেনদেন কমেছে এক শতাংশের বেশি।

দিনের শুরুতে পতন এভাবে দেখা গেলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়। লন্ডনে সকালের দিকে বাজার পড়লেও পরে কিছুটা ঘুরে দাঁড়ায়। দিনের শেষে ফ্রান্স একই রকম অবস্থায় থাকলেও জার্মানির শেয়ারবাজার নেমে এসেছে।

এদিকে অপরিশোধিত তেলের দামও ৪০ ডলারের নিচে নেমে গেছে। তাছাড়া গত কয়েকদিন ধরেই স্বর্ণের দাম পড়তে দেখা গেছে। বাজার বিশেষজ্ঞদের মতে, শুধু ট্রাম্পের করোনার কারণ নয় শেয়ার সূচক পড়া অথবা তেলের দাম নেমে যাওয়ার পেছনে আরও কিছু কারণ রয়েছে।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে বেকারত্ব এখন ৮ শতাংশ। সেপ্টেম্বরে ৬ লাখ ৬১ হাজার চাকরি তৈরি হলেও সেটা পর্যাপ্ত নয়। ট্রাম্পের করোনার পাশাপাশি এসব কারণও প্রভাব ফেলছে শেয়ার বাজারের উপর।

ট্রাম্পের আক্রান্তের খবরের পর জ্বালানি তেলের দামও কমে গেছে। আগের দিনের তুলনায় শুক্রবার জ্বালানি তেলের দাম কমেছে প্রায় ৩ শতাংশ। আন্তর্জাতিক বাজারে অপরিশোধিত তেল ২ দশমিক ৪২ শতাংশ কমে ব্যারেল প্রতি দাম দাঁড়ায় ৩৯ দশমিক ৯৪ ডলার। যুক্তরাষ্ট্রে অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম ২.৪৩ শতাংশ কমে ব্যারেল প্রতি দাম দাঁড়ায় ৩৭ দশমিক ৭৮ ডলার।

এদিকে, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর অতিরিক্ত সতর্কতার অংশ হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মেরিল্যান্ডের ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিকেল সেন্টারে নেয়া হয়েছে।

তার চিকিৎসক জানিয়েছেন, করোনার চিকিৎসায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে রেমডেসিভির দেওয়া হচ্ছে। হোয়াইট হাউস থেকে এক বিবৃতিতে সিন পি কনলি বলেন, আমি এটা জানাতে পেরে আনন্দিত যে, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ভালো আছেন।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 4
    Shares