শনিবার, ডিসেম্বর ৫

টিলা-গাছ কাটার প্রতিবাদে শাবিপ্রবি’র ফটকে অবস্থান কর্মসূচি পালন

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 67
    Shares

সিলেট প্রতিনিধি:: পরিবেশ-প্রতিবেশকে নষ্ট করে, অবজ্ঞা করে করা কোনো উন্নয়নই আসলে উন্নয়ন নয়। টিলা কেটে, গাছ কেটে স্থাপনা নির্মাণ, সড়ক নির্মাণ সবাই করলেও কোনো বিশ্ববিদ্যালয় এমন কাজ করতে পারে না। বিশ্ববিদ্যালয় পাহাড়, টিলা, জলাধার, বৃক্ষ রক্ষা করে কিভাবে উন্নয়ন করা সম্ভব তার নজির স্থাপন করবে। কিন্তু তা না করে টিলা বা গাছ কেটে উন্নয়ন কাজ করলে তা অত্যন্ত দুঃখজনক। এমন কাজের তীব্র সমালোচনা ও প্রতিবাদ হওয়া উচিত।

আজ মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশমুখে আয়োজিত একটি প্রতিবাদী অবস্থান থেকে এমন প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন বক্তারা।

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি হল নির্মাণের নামে টিলার কিছু অংশ ও যাতায়াত সুবিধার কথা বলে কিছু গাছ কাটার প্রতিবাদে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেট শাখা এই প্রতিবাদী অবস্থান কর্মসূচি পালন করে। বিকেল ৩টা থেকে ঘন্টাব্যাপী চলা এই প্রতিবাদী অবস্থান কর্মসূচিতে বিভিন্ন সামাজিক ও পরিবেশবাদী সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

এতে বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরিবেশ-প্রতিবেশ রক্ষার শিক্ষা ও দীক্ষা গ্রহণ করে ভবিষ্যৎ জীবনে তার প্রয়োগ করবে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয় যদি অন্য সবার মতো আচরণ করে তবে তা মেনে নেওয়া যায় না। পেন্ডামিককালে নির্জন বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে টিলা কাটা ও গাছ কাটার পেছনে থাকা দুর্বৃত্তদের চিহ্নিত করা উচিত। পাশাপাশি বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল উন্নয়ন কাজ মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী সম্পন্ন করার দাবি জানান তারা।

অবস্থান কর্মসূচিতে সূচনা বক্তব্য দেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেটের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম কিম।

ভাষাসৈনিক মতিন উদ্-দীন যাদুঘরের পরিচালক ডা. মোস্তফা শাহজাহান চৌধুরী বাহারের সভাপতিত্বে এতে আরেও বক্তব্য দেন, ভূমিসন্তান বাংলাদেশের সমন্বয়ক আশরাফুল কবির, ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট এসোসিয়েশনের (ইমজা) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মঈনুদ্দিন মঞ্জু, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) সিলেটের যুগ্ম-সম্পাদক ছামির মাহমুদ, বিজ্ঞান মঞ্চের সমন্বয়ক প্রণব জ্যোতি পাল, সাংস্কৃতিক সংগঠক বিমান তালুকদার, গণতান্ত্রিক ব্যবসায়ী ফোরাম সিলেটের দপ্তর সম্পাদক আব্দুল জব্বার শাহী, সুরমা রিভার ওয়াটারকিপারের মুজাহিদ হোসেন মুনিম, পরিবেশকর্মী রুবেল মিয়া , সাংস্কৃতিক কর্মী সাজ্জাদ হাসাইন প্রমুখ।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 67
    Shares