শনিবার, এপ্রিল ১৭
শীর্ষ সংবাদ

টাকার ‘ভাগাভাগি’ নিয়ে শাবি ছাত্রলীগের দুই পক্ষে হাতাহাতি

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: সরস্বতী পূজায় উদ্ধৃত টাকার ভাগাভাগি নিয়ে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তমঞ্চের পার্শ্ববর্তী পূজামন্ডপে কয়েক দফায় এ হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

জানা যায়, ছাত্রলীগের কয়েকটি গ্রুপের নেতাকর্মীদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদ গঠিত হয়। গতকাল বৃহস্পতিবার পূজার উদ্ধৃত টাকার ভাগাভাগি নিয়ে পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি রাজিব সরকারের সাথে কার্যকরী সাধারণ সম্পাদক বিজয় কুমার ও সুজন বৈষ্ণবের বাগবিতণ্ডা হয়। বাগবিতন্ডার এক পর্যায়ে তা হাতাহাতিতে রূপ নেয়। এসময় কয়েকজন আহত হয়।

রাজিব সরকার শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মৃণ্ময় দাস ঝুটনের এবং বিজয় কুমার ও সুজন বৈষ্ণব সহ-সম্পাদক নিউটন দাসের অনুসারী।এ ঘটনায় সহ-সম্পাদক নিউটন দাস বলেন, ‘আমি এ বিষয়ে কিছু জানি না।’

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মৃণ্ময় দাস ঝুটন বলেন, ‘ঘটনাটি যারা ঘটিয়েছে তারা নিজেদের মধ্যে মিটমাট করে নিয়েছে।’সার্বিক ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান খান বলেন, ‘ঘটনাটি সম্পূর্ণই কেন্দ্রীয় পূজা উদযাপন পরিষদের মধ্যে সংঘটিত। আমি যতোদূর শুনেছি তাদের নিজেদের মধ্যে মীমাংসা হয়েছে। তারপরও যদি ছাত্রলীগের কারো সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায় আমরা বিষয়টি দেখবো। যথাযথ কর্তৃপক্ষের প্রতি প্রত্যাশা থাকবে অতিদ্রুত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ব্যবস্থা গ্রহণ করার।’

শাবি শাখা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রুহুল আমিন বলেন, ‘এটা শাবি ছাত্রলীগের কোন বিষয় না। বিশ্ববিদ্যালয়ের পূজা উদযাপন পরিষদের সমস্যা এটা। ক্যাম্পাসের পরিবেশ শান্ত রাখার উদ্দেশ্যে ছাত্রলীগের নেতারা বিষয়টি মিটমাট করে দেয়।’

হাতাহাতির বিষয়ে সহকারী প্রক্টর আলমগীর কবির বলেন, ‘শুনেছিলাম তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়েছে। পরে নিজেরা মীমাংসা করে নিয়েছে।’ তবে ঘটনার সূত্রপাত কিভাবে হয়েছে সে ব্যাপারে তিনি কিছু জানেন না বলে মন্তব্য করেন।


এখানে শেয়ার বোতাম