বুধবার, এপ্রিল ১৪
শীর্ষ সংবাদ

টরন্টো শহীদ মিনার উদ্বোধনের সর্বজনীন কমিটির ঘোষণা

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 50
    Shares

প্রবাস ডেস্ক:: কানাডার টরন্টোতে আইএমএলডি’র মিথ্যাচার ও বিতর্কিত ভূমিকার প্রতিবাদে লুটেরা বিরোধী মঞ্চের আহ্বানে রবিবার সন্ধ্যা ৭টায় এক অনলাইন সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অন্টারিওর সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, পেশাজীবী সংগঠন ও অন্যান্য নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সর্বসম্মতভাবে টরন্টোর শহীদ মিনার উদ্বোধনের একটি সর্বজনীন কমিটি ঘোষণার প্রস্তাব গ্রহন করা হয়।

উল্লেখ্য গত ২৬ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার শহীদ মিনার নির্মাণ পরিস্থিতি ব্যাখ্যার নামে লুটেরাকে/দের রক্ষায় OTIMLD এর (Organization for Toronto International Mother Language Day Monument Inc.) এক পাতানো সভা অনুষ্ঠিত হয়। যদিও ২/১টি ছাড়া সভায় প্রতিনিধিত্বকারী কোন সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ-ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন না। সেই পাতানো বৈঠকে অভিযুক্ত ও বিতর্কিত লুটেরাকে বৈধতার দানের পক্ষে তাদের সুবিধাভোগী কতিপয় ব্যক্তির ভূমিকার তীব্র নিন্দা ও ঘৃণা প্রকাশ করা হয়।

বক্তারা বলেন, এই ঘটনার মাধ্যমে IMLD নিজেদের আরো বিতর্কিত করলেন এবং তাদের প্রতি আস্থার শেষ সুযোগটাও হাতছাড়া করলেন। বর্তমান কমিটির চেয়ারম্যান ও সভাপতি সংগঠনের অন্যান্য পরিচালকের মতামত ও সিদ্ধান্তের তোয়াক্কা না করে নিজেরা স্বেচ্ছাচারিতার ভিত্তিতে সংগঠনটি পরিচালনা করছেন। সংগঠনের কাঠামোতে চেয়ারম্যান নামে কোন পদ থাকলেও চেয়ারম্যান পদ ব্যবহার করে, বর্তমান কমিটির চেয়ারম্যান ও সভাপতি লুটেরা বিরোধী আন্দোলনসহ নানা বিষয়ে ক্রমাগত মিথ্যাচার ও ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে যাচ্ছেন।

এ সব ঘটনার প্রেক্ষিতে আমরা মনে করি, এই কমিটির চেয়ারম্যান ও সভাপতি আইএমএলডি’র দায়িত্বশীল পদে থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন। লুটেরা বিরোধী মঞ্চ থেকে ২১ ফেব্রুয়ারী উদযাপন অনুষ্ঠান থেকে অভিযুক্তকে বহিষ্কারের দুই সপ্তাহ সময় দেয়া হয়েছিল, আর মাত্র ৫দিন বাকী আছে এরমধ্যে এ বিষয়ে স্পষ্ট ঘোষণা দেয়া না হলে, কমিটির প্রতি অনাস্থা আনা হবে, এবং তা বাতিলের কর্মসূচী দেয়া হবে। সভায় সর্বসম্মতভাবে টরন্টোর শহীদ মিনার উদ্বোধনের একটি সর্বজনীন কমিটি ঘোষণার প্রস্তাব গ্রহন করা হয়।

আন্দোলনকারীদের পক্ষ থেকে দ্যর্থহীন বলা হয়, শহীদ মিনার নির্মান প্রক্রিয়ার সাথে কোন অভিযুক্ত, বিতর্কিত কোন ব্যক্তিকে রাখা হবে না। শহীদ মিনারকে আমরা কোনভাবেই কলঙ্কিত হতে দেবো না। প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের স্বার্থে লুটেরা বিরোধী সামাজিক আন্দোলন চলবে। বক্তারা বলেন, যারা লুটেরাদের রক্ষার কমিউনিটির স্বার্থের বিপক্ষে যাবেন তাদেরকেও লুটেরাদের সহযোগী হিসেবে বর্জন করা হবে।

লুটেরা বিরোধী মঞ্চ, কানাডার অন্যতম সংগঠক, মাহবুব চৌধুরী রনি’র সঞ্চলনায় ভার্চ্যুয়াল আলোচনাসভায় বক্তব্য রাখেন, প্রকৌশলী রেজাউর রহমান, ব্যারিস্টার আলমগীর হোসাইন, আব্দুল হালিম মিয়া, মাসুদ আলী লিটন, আহমেদ হোসেন, শিবু চৌধুরী, সুমন সাইয়ীদ, নওশের আলী, ডঃ মঞ্জুরে খোদা, আতিউর রহমান, এমরুল ইসলাম, নৃত্যশিল্পী অরুণা হায়দার, সৈকত রুশদী, ইউসুফ শেখ, ফারজানা চৌধুরী বিন্দু, রেজা অনিরুদ্ধ, হাসমত আরা চৌধুরী জুঁই, মোহাম্মাদ বাশার, মাসুক মিয়া, রেজা সাত্তার, শানদে, রাজিবুর রহমান, এরিন কবীর, আজফর সাঈদ ফেরদৌস, ইলিয়াছ খান, সোলায়মান তালুত রবিন, রোকেয়া পারভিন, ডঃ সুরভি সাঈদ, কণ্ঠশিল্পী নাহিদ কবীর কাকলী, রিফাত নওরীন, শেখ নাহার, লিটন কাজি, সোয়েব সাঈদ, লিটলী রায়, সাদ চৌধুরী, আসাদ নিশু, রুহুল চৌধুরী, আরিফ আহমেদ, জাকারিয়া চৌধুরী, মুনির রশিদ, ফাইজুল চৌধুরী, মিলাদ চৌধুরী, মামুনুর রশীদ, রতন রায়, রুবিনা চৌধরী, শিউলি জাহান, সুশীতল চৌধুরী, রানা কচি, বাবলু হক, সাইফুর রহমান, মিজান রহমান, হামিদুল হক প্রমুখ।

 


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 50
    Shares