রবিবার, মার্চ ৭
শীর্ষ সংবাদ

ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়নি : ওবায়দুল কাদের

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেওয়ার কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

রোববার (৮ সেপ্টেম্বর) সকালে সচিবালয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

এর আগে শনিবার (৭ সেপ্টেম্বর) রাতে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার ও সংসদীয় মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভায় প্রধানমন্ত্রী ছাত্রলীগের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করে বর্তমান কমিটি ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দেন বলে সংবাদ প্রকাশ হয়।

সে ব্যাপারে জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘যতক্ষণ পর্যন্ত কিছু সিদ্ধান্ত আকারে না আসছে ততক্ষণ পর্যন্ত এর সত্যতা স্বীকার করা যাবে না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কাল ছিল মনোনয়ন বোর্ডের সভা। এই সভায় এসব সিদ্ধান্ত আসে না। কথা প্রসঙ্গে আলোচনা হয়। ওখানে আমরা অনেক কথাই বলতে পারি। ক্ষোভের প্রকাশও হতে পারে। কিন্তু দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে এটা নিয়ে আমার মন্তব্য করা ঠিক হবে না।’
এর আগে শনিবার রাতে আওয়ামী লীগের সভায় অংশ নেওয়া বিভিন্ন নেতার মাধ্যমে জানা যায়, ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের বিভিন্ন বিতর্কিত কর্মকাণ্ড ও অযোগ্যতার কারণেই এই কমিটি ভেঙে দেওয়ার কথা বলেছেন দলীয় প্রধান।

ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দেওয়া সংক্রান্ত গণমাধ্যমে যে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে তা সত্য নয় বলে উল্লেখ করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। এসব খবর হাওয়া থেকে পাওয়া অভিযোগ করে তিনি বলেন, ‘কথা হয় একরকম, আসে আরেকরকম। এরকম কিছু হলে সেটা ওপেন স্টেটমেন্টে হবে। পাবলিকলি হবে। সবাই জানবে।’

‘প্রধানমন্ত্রী কি ছাত্রলীগের ব্যাপারে ক্ষুব্ধ?’- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘কিছু কিছু ব্যাপারে তো ক্ষোভ থাকতেই পারে। যেমন নির্বাচনের সময় বিদ্রোহ প্রার্থীদের বিরুদ্ধে আমরা ক্ষুব্ধ। সেরকম ভাবে ছাত্রলীগেরও কিছু কিছু ব্যাপারে ক্ষোভ থাকতেই পারে। আমি নিজেও তাদের কিছু কর্মকাণ্ডের ব্যাপারে ক্ষুব্ধ।’

এ সময় জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান নির্বাচন সংক্রান্ত প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘পার্টি যাকে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করবে তারা তাকেই মেনে নেবেন।’


এখানে শেয়ার বোতাম