মঙ্গলবার, মে ১১
শীর্ষ সংবাদ

ছাতকে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শনে জেলা প্রশাসক আব্দুল আহাদ

এখানে শেয়ার বোতাম

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি :: সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ ছাতকের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেছেন।

মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) সকাল থেকে তিনি ইসলামপুর ইউনিয়নের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কমিউনিটি ক্লিনিক ও ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় পরিদর্শন করেন।

সকালে জেলা প্রশাসক ছাতকের মাধবপুরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত সতের শহীদদের স্মরণে নির্মিত শিখা সতের স্মৃতিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে তিনি শহরে নির্মানাধীন শেখ রাসেল মিনি ষ্টেডিয়াম পরিদর্শন করেন। এর পর ইসলামপুর ইউনিয়নের ইসলামপুর হাইস্কুল, গনেশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক গনেশপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শ্রেনী কক্ষে পাঠদান কার্যক্রম পর্যবেক্ষণ ও পাঠদান করান ও বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের নির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেন। শেষে তিনি ইসলামপুর ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে কৃষি, মৎস্য, একটি বাড়ি একটি খামার ও তথ্য আপা নামের ৪ টি ষ্টল পরিদর্শন করে এর কার্যক্রম নিয়ে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ।

ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হেকিমের সভাপতিত্বে এ সভা অনুষ্টিত হয়। দুপুরে ইউনিয়নের মাদ্রাসা বাজারে কমিউনিটি ক্লিনিক পরিদর্শন করে এসময় আগত রোগী ও ক্লিনিকের দায়িত্বরতদের সাথে কথা বলেন তিনি। ইসলামপুর ইউনিয়নের সৈদাবাদ এলাকায় ইকো পার্কের নির্ধারিত স্থান ও পরিদর্শন করেছেন।

বিকেলে ধনী টিলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্ধে আদিবাসীদের দেয়া ১৩ টি দূর্যোগ সহনীয় ঘরের চাবি হস্তান্তর করেন জেলা প্রশাসক।

এসময় আদিবাসীদের সাথে এক মতবিনিময়কালে তিনি তাদের জীবন-মান উন্নয়নে ধনী টিলায় তাঁত মেশিন স্থাপনেরও কথা বলেন।

দিনব্যাপি বিভিন্ন প্রতিষ্টান পরিদর্শন ও মতবিনিময়কালে জেলা প্রশাসকের সাথে ছিলেন, ছাতক উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. গোলাম কবির, সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাপস শীল, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাদাত মোঃ লাহিন, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সহকারী কমিশনার (গোপনীয়) রিফাতুল হক, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লিপি বেগম, ছাতক থানার অফিসার ইনচার্জ মোস্তফা কামাল, উপজেলা প্রকৌশলী আবুল মনসুর মিয়া, সমাজসেবা কর্মকর্তা শফিউল আলম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা পুলিন চন্দ্র রায়, সমবায় কর্মকর্তা মতিউর রহমান, জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী মিজানুর রহমান, ইউআরসি ইন্সট্রাক্টর মোস্তফা আহসান হাবীব প্রমূখ।


এখানে শেয়ার বোতাম