সোমবার, নভেম্বর ৩০

চলে গেলেন ‌‘ইত্যাদি’র আরও একজন নিয়মিত শিল্পী মহিউদ্দিন বাহার।

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 8
    Shares

অধিকার ডেস্ক::  চলে গেলেন ‌‘ইত্যাদি’র আরও একজন নিয়মিত শিল্পী মহিউদ্দিন বাহার। প্রায় ২৬ বছর ধরে এই জনপ্রিয় ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে কাজ করেছেন। সমাজের নানা অসঙ্গতি নিয়ে অভিনয় করেছেন মহিউদ্দিন বাহার।
সর্বশেষ ২০১৮ সালে কাজ করেছিলেন অসুস্থ এ শিল্পী। আর এজন্য তাকে অ্যাম্বুলেন্সে শুটিং ইউনিটে এনেছিল ইত্যাদি টিম।

সদ্য প্রয়াত এ শিল্পীকে নিয়ে স্মৃতিচারণে ইত্যাদির উপস্থাপক-পরিকল্পক হানিফ সংকেত বলেন, ‌‘শুধু ইত্যাদিই নয়, আশির দশকের শুরু থেকে আমার প্রতিটি অনুষ্ঠানেই মহিউদ্দিন ভাই ছিলেন নিয়মিত শিল্পী। তার সঙ্গে ছিল আমার আত্মিক সম্পর্ক। শুটিং ছাড়াও প্রায় নিয়মিতই তিনি আমার অফিস-বাসায় আসতেন, গল্প করতেন। অভিনয়কে খুব ভালোবাসতেন। ইত্যাদিতে সর্বশেষ অভিনয় করেছেন ২০১৮ সালের মার্চ মাসে (ব্রাহ্মণবাড়িয়া পর্বে)। সে সময়ও তিনি অসুস্থ ছিলেন, সেভাবে হাঁটাচলা করতে পারতেন না। কিন্তু অভিনয়ের প্রবল ইচ্ছা থাকায় আমরা অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে নিয়ে আসি। সবাই মিলে কোলে করে তাকে দোতলায় উঠাই। অনেকদিন পর সহশিল্পীদের কাছে পেয়ে সারা দিন তাদের সঙ্গে গল্প করে কাটিয়ে দেন।’

মহিউদ্দিন বাহারকে নিয়ে এই টেলিভিশন ব্যক্তিত্ব আরও বলেন, ‘তিনি ছিলেন অত্যন্ত বিনয়ী, সহজ-সরল মানুষ। খুবই সাদামাটা জীবনযাপন করতেন। মহিউদ্দিন ভাই একজন সৎ, নীতিবান আদর্শ সরকারি কর্মকর্তাও। গুণী এই অভিনেতার মৃত্যুতে আমরা গভীরভাবে শোকাহত।

মহিউদ্দিন বাহার আজ (১৪ সেপ্টেম্বর) ভোর পাঁচটায় মারা গেছেন। এই অভিনেতা বেশ কিছু দিন ধরেই হৃদ ও কিডনি রোগে ভুগছিলেন।

সরকারি চাকরিজীবী মহিউদ্দিন বাহারের নেশা ছিল অভিনয়। এ কারণে স্কুলজীবন থেকেই বিভিন্ন নাট্য সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। ১৯৭৬ সালে নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ে যোগ দেন। পরের বছর বাংলাদেশ টেলিভিশনের ছোটদের সিরিজ ‘রোজ রোজ’-এ অভিনয়ের মাধ্যমে টিভি নাটকে পদার্পণ করেন। এরপর নিয়মিত কাজ করেছেন। তবে তিনি বেশি জনপ্রিয় হন ইত্যাদির ছোট নাটিকাগুলোতে। টানা ২৬ বছর ধরে এই ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানে কাজ করেছেন তিনি।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 8
    Shares