শনিবার, এপ্রিল ১৭
শীর্ষ সংবাদ

চট্টগ্রামে থানার টয়লেট দিয়ে নারী আসামির পলায়ন

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: চট্টগ্রামের পটিয়া থানা থেকে পালিয়েছে এক ইয়াবা কারবারি নারী। তার নাম মোসাম্মৎ লাইজু (৩৬)। সে বরগুনার ছোট গৌরিচন্না গ্রামের মো. জাকির হোসেনের স্ত্রী।

শনিবার সকালে পটিয়া থানার ভেতরে টয়লেটের ভেন্টিলেটর দিয়ে ওই নারী পালিয়ে গেছে বলে দাবি করেন থানার এএসআই শামসুদ্দিন ভূঁইয়া। এ ঘটনায় এএসআই শামসুদ্দিন ভূঁইয়া, কনস্টেবল মো. রিয়াজ ও কনস্টেবল মমতাজ বেগমকে ক্লোজ করা হয়েছে। এর আগে পটিয়া থানার উপপরিদর্শক মোবারক হোসেন এপরে করে ওই নারীর পেটে ইয়াবা থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হন। পরে ওষুধ খাইয়ে রাতভর চেষ্টা চালিয়ে তার পেটে থাকা ১৯শ’ পিস ইয়াবা বের করা হয়। পালিয়ে যাওয়ার সময় ওই নারী পরনের নীল রঙের জিন্স শার্ট ও সেন্ডেল টয়লেটে রেখে যায়।

শুক্রবার সন্ধ্যায় পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মোবারক হোসেন অভিযান চালিয়ে মহাসড়কের পটিয়া উপজেলার শান্তিরহাট এলাকা থেকে লাইজুকে গ্রেপ্তার করেন। ওই নারীর কাছে ঢাকার একটি পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টারের পরিচয়পত্র পাওয়া গেছে। পুলিশের দাবি, ওই কার্ড ভুয়া। নিজের নামে একটি কার্ড বানিয়ে লাইজু ইয়াবা ব্যবসা করে বলে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে জানিয়েছে।

পুলিশ হেফাজত থেকে ইয়াবা পাচারকারী পালানোর ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (দক্ষিণ) আফরোজুল হক টুটুল ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে পুলিশের তিনজনকে ক্লোজ করেন।

টুটুল জানান, ইয়াবা উদ্ধার ও পুলিশ হেফাজত থেকে পালানোর ঘটনায় একজন এএসআই, এক নারী ও পুরুষ কনস্টেবলকে ক্লোজ করা হয়েছে। থানায় পৃথক দুটি মামলা রেকর্ড হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া আসামিকে ফের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানান, ইয়াবাসহ পুলিশ হেফাজতে থাকা লাইজু নামের ইয়াবা পাচারকারী নারী টয়লেটের ভেন্টিলেটর দিয়ে পালিয়ে যাওয়ার কথা দাবি করছেন অভিযুক্ত দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তারা। তারা দায়িত্বে অবহেলা করেছেন।


এখানে শেয়ার বোতাম