শনিবার, এপ্রিল ১৭
শীর্ষ সংবাদ

গৃহবধূর আত্মহত্যা, স্বামী-শ্বশুর-শাশুড়ির কারাদণ্ড

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক::রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলায় গৃহবধূ অনুভা চক্রবর্তীকে (২১) আত্মহত্যায় প্ররোচনার মামলায় স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ির সাজা হয়েছে।বুধবার (২৯ জানুয়ারি) দুপুরে জনাকীর্ণ আদালতে এ মামলার রায় ঘোষণা করেন রাজশাহীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মেহেদী হাসান তালুকদার।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন গৃহবধূ অনুভার স্বামী অসীত চক্রবর্তী (২৫), শ্বশুর অনীল চক্রবর্তী (৫৫) ও শাশুড়ি মনজু রানি (৪০)।এদের মধ্যে অসীত চক্রবর্তীকে পাঁচ বছর সশ্রম কারাদণ্ড ও পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয় অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এছাড়া অনীল চক্রবর্তী ও মনজু রানিকে তিন বছর সশ্রম কারাদণ্ড এবং তিন হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত। অনাদায়ে প্রত্যেককে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়। রায় ঘোষণার সময় দণ্ডপ্রাপ্তরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। পরে তাদের রাজশাহী কেন্দ্রীয় কারাগারে নেয়া হয়।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী পিপি আহসান হাবীব রঞ্জু বলেন, ২০১৪ সালের ১৭ নভেম্বর রাত সাড়ে ৯টার দিকে যৌতুকের দাবিতে স্বামীর অত্যাচার সইতে না পেরে গৃহবধূ অনুভা চক্রবর্তী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। রাজশাহীর মোহনপুর উপজেলার খয়রা গ্রামের বাসিন্দা আলীর ভাড়া বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। গৃহবধূ অনুভা নিজের শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। পরে তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। আহত অবস্থায় তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ছয়দিন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে ২৩ নভেম্বর মারা যান গৃহবধূ অনুভা।

এ ঘটনায় অনুভা চক্রবর্তীর মামা অতুল কুমার চক্রবর্তী বাদী হয়ে মামলা করেন। তদন্ত শেষে অনুভা চক্রবর্তীর স্বামী ও শ্বশুর-শাশুড়ির বিরুদ্ধে আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ আনা হয়। ২০১৫ সালের ৩১ মে আদালতে এ মামলার অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে বুধবার মামলার রায় দেন বিচারক।


এখানে শেয়ার বোতাম