সোমবার, মে ১০
শীর্ষ সংবাদ

খোকা দেশে ফিরতে চাইলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে : পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে চিকিৎসাধীন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সাদেক হোসেন খোকার পরিবার ‘ট্রাভেল পারমিট’র (পাসপোর্টের বিকল্প হিসেবে ভ্রমণের সাময়িক অনুমতিপত্র) জন্য আবেদন করলে সেখানে থাকা বাংলাদেশ কনস্যুলেট প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

রোববার দুপুরে নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এক পোস্টে একথা জানান তিনি।

শাহরিয়ার আলম বলেন, নিউইয়র্কে সাদেক হোসেন খোকার পরিবার ‘ট্রাভেল পারমিট’র জন্য আবেদন করলে আমাদের মিশন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। তিনি এবং তার স্ত্রীর যেহেতু পাসপোর্ট নেই সেহেতু আন্তর্জাতিকভাবে অন্য দেশ থেকে নিজের দেশে ফেরার এটাই একমাত্র ব্যবস্থা।

তিনি বলেন, আমি আমাদের নিউইয়র্কের কনস্যুলেটে এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছি।

প্রতিমন্ত্রী ফেসবুকে বলেন, তিনি (খোকা) এবং তার স্ত্রীর নামে মামলা আছে এবং গ্রেফতারি পরোয়ানাও থাকতে পারে (আমি নিশ্চিত নই) কিন্তু স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাথে কথা বলে যা জেনেছি, তাদের আগমনের পর বিষয়টি মানবিক দৃষ্টিকোণ থেকে দেখা হবে।

অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকা ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য ২০১৪ সালের ১৪ মে সপরিবারে নিউইয়র্ক যান। তারপর থেকে সেখানেই রয়েছেন তিনি।

খোকার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে গত ১৮ অক্টোবর থেকে নিউ ইয়র্কের ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্লোয়ান ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টারে তার চিকিৎসা চলছে।

খোকার পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, ২০১৭ সালে তার পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় বর্তমানে তার এবং পরিবারের কয়েকজন সদস্যের কোনো পাসপোর্ট সরকার দেয়নি।

এ বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর খোকাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে সরকারের সহায়তা চেয়েছেন। তিনি বলেছেন, আমরা সরকারের কাছে আহ্বান জানাচ্ছি, তিনি যেন সুস্থ অবস্থায় দেশে ফিরতে পারেন।


এখানে শেয়ার বোতাম