শনিবার, এপ্রিল ১৭
শীর্ষ সংবাদ

খাশোগি হত্যা: যুবরাজকে জড়িয়ে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান সৌদির

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 4
    Shares

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে হত্যার সঙ্গে সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান জড়িত নেই বলে দাবি করেছে দেশটি। খাশোগিকে হত্যায় সৌদি যুবরাজকে জড়িয়ে যুক্তরাষ্ট্র যে গোয়েন্দা প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে তাকে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে ‘মিথ্যা’ বলা হয়েছে।

খাশোগি হত্যায় সৌদি যুবরাজ অনুমোদন দিয়েছিলেন বলে শুক্রবার মধ্যরাতে প্রতিবেদন প্রকাশ করে বাইডেন প্রশাসন।

যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়, ‘আমরা দেখতে পেয়েছি, সৌদি আরবের যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান সৌদি সাংবাদিক জামাল খাশোগিকে আটক বা হত্যা করতে ইস্তাম্বুলে একটি অভিযান অনুমোদন করেছিলেন।’ এই প্রথম যুক্তরাষ্ট্র সরকার প্রকাশ্যে সৌদি যুবরাজকে এ হত্যায় অভিযুক্ত করল।

প্রতিবেদন প্রকাশের পর সৌদি আরব তা প্রত্যাখ্যান করে বিবৃতিতে বলে, ‘সৌদি আরব এই নেতিবাচক, মিথ্যা এবং অগ্রহণযোগ্য মূল্যায়ন প্রত্যাখ্যান করছে।’ খবর আরব নিউজের

সৌদি আরবের দাবি, ‘এই অপরাধ ভিন্ন একটি গ্রুপ করেছে, যারা সব প্রাসঙ্গিক বিধি লঙ্ঘন করেছে। জড়িত সবাইকে অভিযুক্ত করে সাজা দিয়েছে আদালত। এই সাজা খাশোগির পরিবারও স্বাগত জানিয়েছে।’

২০১৮ সালে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে নির্মমভাবে হত্যা করা হয় যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত ওয়াশিংটন পোস্টের কলামিস্ট খাশোগিকে। তার মরদেহ টুকরো টুকরো করা হয়। তিনি সৌদি যুবরাজের কট্টর সমালোচক ছিলেন। তবে আগে যুবরাজকে এ হত্যায় দায়ী করে সিআইএ প্রতিবেদন দিলেও তা প্রকাশে বাধা দিয়েছিলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

এর আগে জাতিসংঘের একটি প্রতিবেদনেও সৌদি সরকারকে খাশোগি হত্যার জন্য দায়ী করা হয়েছিল।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন সৌদি আরবের মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিয়েছেন। তিনি দেশটিতে অস্ত্র বিক্রিও সীমিত করতে যাচ্ছেন। একইসঙ্গে এক ধরনের একটি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে যুবরাজের পদ দখল করা মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গেও যোগাযোগ সীমিত করার উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 4
    Shares