রবিবার, জানুয়ারি ২৪

কাশ্মীরে বিদ্রোহী-নিরাপত্তাবাহিনীর সংঘর্ষে নিহত ৬

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ভারতশাসিত কাশ্মীরে বিচ্ছিন্নতাবাদীদের সঙ্গে নিরাপত্তাবাহিনীর সংশ্লিষ্ট দুটি সংঘর্ষের ঘটনায় চার নিরাপত্তাকর্মী এবং দুই বিচ্ছিন্নতাবাদী নিহত হয়েছেন। রয়টার্স এ খবর জানিয়ে বলছে, গত বছর মোদি সরকার মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ট ওই অঞ্চলটির স্বায়ত্তশাসন বাতিলের পর সোমবারই ছিল সবচেয়ে প্রাণঘাতী দিন।

কাশ্মীর পুলিশ প্রধান বিজয় কুমার রয়টার্সকে জানিয়েছেন, ‘সোমবার সকালে একদল ‘জঙ্গি’ মূল শহর শ্রীনগর থেকে উত্তরে অবস্থিত নিরাপত্তা বাহিনীর একটি তল্লাশি চৌকিতে হামলা চালায়। হামলায় স্থানীয় এক পুলিশ সদস্য ছাড়াও আধাসামরিক বাহিনী সিপিআরএফ এর দুজন কর্মকর্তা নিহত হন।

সকালের ওই হামলার পর পাল্টা অভিযান চালায় নিরাপত্তা বাহিনী। এতে দুজন বিচ্ছিন্নতাবাদী ছাড়াও আরও এক সেনা সদস্য নিহত হন। গত বছর কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদের পর উপত্যকায় একদিনে এত মৃত্যুর ঘটনা ঘটেনি। এর আগে গত শুক্রবার বিচ্ছিন্নতাবাদীদের হামলায় কাশ্মীরের দুই পুলিশ সদস্য প্রাণ হারান।

কাশ্মীর পুলিশ প্রধান আরও জানান, সোমবার আরও একটি হামলা পরিকল্পনা নস্যাৎ করে দিয়েছে নিরাপত্তাবাহিনী। এদিন সকালে শ্রীনগর থেকে দক্ষিণে অবস্থিত পুলওয়ামা জেলার একটি সেতুর নিচে বিস্ফোরক পুতে রেখেছিল। কিন্তু নিরাপত্তাবাহিনী খোঁজ পেয়ে সেখানে গিয়ে ওই বিষ্ফোরক ধ্বংস করে।

রয়টার্স বলছে, এ মাসে বিচ্ছিন্নবাদীরা গ্রাম পরিষদের সদস্যসহ কাশ্মীরের অন্যান্য নেতাদের লক্ষ্য করে হামলার পরিমাণ বাড়িয়েছে। গত তিন মাসে এ রকম পাঁচ জন নেতা গুলিতে নিহত হওয়ার পর পুলিশ এক হাজার গ্রামনেতাকে উচ্চ নিরাপত্তা রয়েছে এমন জায়গায় স্থানান্তরিত করেছে।

যাদের ওপর আক্রমণ করা হয়েছে তাদের বেশিরভাগ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সদস্য। রয়টার্স বলছে, হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার গত বছর কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের পর থেকে অঞ্চলটির মানুষ এ পদক্ষেপকে তাদের বিরুদ্ধে জুলুম হিসেবে আখ্যায়িত করেছে।


এখানে শেয়ার বোতাম