শনিবার, মে ৮
শীর্ষ সংবাদ

করোনা মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতির ঘাটতি রয়েছে : প্রগতিশীল ছাত্রজোট

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 316
    Shares

নিজস্ব প্রতিবেদক:: করোনার সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতির ব্যাপক ঘাটতি রয়েছে অভিযোগ করে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ বলেছেন তাই বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে।

আজ বৃহস্পতিবার (০৯ এপ্রিল) সংবাদ পত্রে পাঠানো এক বিবৃতিতে প্রগতিশীল ছাত্রজোটের সমন্বয়ক ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি মাসুদ রানা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের সভাপতি আল-কাদেরী জয়, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মেহেদী হাসান নোবেল, বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবির এই অভিযোগ করেন।

বিবৃতিতে জোটনেতৃবৃন্দ করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের দায়িত্বহীনতা ও ব্যর্থতায় উদ্বিগ্নতা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “বাংলাদেশে করোনায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। ৩ মাস সময় পার হলেও করোনার সংক্রমণ মোকাবিলায় সরকারের প্রস্তুতির ব্যাপক ঘাটতি রয়েছে। বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণের ১ মাস সময় অতিবাহিত হয়ে সংক্রমণ চতুর্থ স্তরে পৌঁছেছে। অথচ করোনা পরীক্ষার স্বল্পতা, ডাক্তারদের পর্যাপ্ত পিপিই’সহ সুরক্ষা আয়োজন না থাকায় হাসপাতালগুলোতে রোগীদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। ভেন্টিলেটর-এর স্বল্পতা, আইসিইউ নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আইইডিসিআর এর বক্তব্যের পার্থক্য এবং তথ্য গোপনের ঘটনা ঘটছে। এছাড়াও শ্রমজীবী, নিম্ন আয়ের মানুষ কাজ করতে না পারার কারণে চরম আর্থিক সংকটে পড়েছে। নিম্ন আয়ের মানুষের ঘরে খাবার নেই। ৫ কোটি ইনফর্মাল সেক্টরের শ্রমজীবী মানুষ চরম অনিশ্চয়তায় দিনাতিপাত করছে।

প্রধানমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলনে ধনী শিল্পপতি-ব্যবসায়ীদের জন্য ৭২,১৫০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করলেও শ্রমজীবী মানুষের ডিরেক্ট রেশনের পর্যাপ্ত বরাদ্দের ঘোষণা তাতে নেই। সরকারী ত্রাণ নিয়ে চলছে ব্যাপক দুর্নীতি ও লুটপাটের ঘটনা। এছাড়াও গার্মেন্টস মালিকদের মুনাফার শিকার এ দেশের লক্ষ লক্ষ গার্মেন্টস শ্রমিক। চা-বাগানে শ্রমিকদের ছুটি ঘোষণা করা হয়নি। ফলে শ্রমিকরা সেখানে বাধ্য হয়ে কাজ করছে। নেতৃবৃন্দ বলেন, ব্যাপক জনসাধারণকে করোনা টেস্টের আওতায় আনতে হবে, অন্যান্য রোগের চিকিৎসার ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে, শ্রমজীবী মানুষের জন্য, কৃষকের জন্য সুনির্দিষ্ট প্যাকেজ ঘোষণা করতে হবে, পর্যাপ্ত পরিমাণে বিনামূল্যে রেশনিং চালু করতে হবে।”

এছাড়াও নেতৃবৃন্দ ছাত্র-যুবকদের দেশের এই সংকটময় পরিস্থিতিতে জেলায় জেলায় স্বেচ্ছাসেবী বাহিনী গঠন করে যথাযথ প্রশিক্ষণ ও সুরক্ষা ব্যবস্থা গ্রহণ করে করোনা মোকাবেলায় সর্বাত্মক এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 316
    Shares