মঙ্গলবার, মে ১১
শীর্ষ সংবাদ

করোনারোগী তল্লাশির নামে কিশোরীকে গণধর্ষণকারীদের শাস্তির দাবি

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 158
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম এর কেন্দ্রীয় সভাপতি রওশন আরা রুশো এবং সাধারণ সম্পাদক শম্পা বসু আজ ৩১ মার্চ সংবাদপত্রে পাঠানো এক যুক্ত বিবৃতিতে জামালপুর জেলায় করোনা রোগী তল্লাশির নামে কিশোরীকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, পত্রিকায় প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, জামালপুর জেলায় গত রবিবার ২৯ জানুয়ারি রাতে এক বাড়িতে ‘এই ঘরে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী লুকিয়ে আছে। তল্লাশি করতে হবে। ঘর খোলেন।’ এ কথা বলে পুলিশ পরিচয়ে ঘরে ঢোকে পাঁচ বখাটে। এর পর গৃহকর্তার গলায় ছুরি ধরে এবং তার স্ত্রীকে মারধর করে তাদের কিশোরী কন্যাকে (১৪) তুলে নিয়ে নদীর পাড়ে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে ফেলে রাখে। পরে কিশোরীর বাবা তাকে উদ্ধার করে। পুলিশ এখন পর্যন্ত একজনকে গ্রেফতার করেছে।

বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, করোনা ভাইরাসের আতঙ্কে সারাদেশ যখন লকডাউন তখন ৫ জন যুবক এমন ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটাল! লকডাউনের আগে দেখা গেছে, জন্মদিনের দাওয়াত দিয়ে বাসায় এনে ধর্ষণ, চলন্ত বাসে ধর্ষণ, রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণ এমন কোন পন্থা নেই যা করা হচ্ছে না। এখন লকডাউনের সময়ে নারী, কিশোরী-কন্যা শিশুরা ঘর থেকে বের হচ্ছে খুব কম তখন এভাবে পুলিশের পরিচয়ে তল্লাশির নাম করে কিশোরীকে গণধর্ষণ করা হলো।

বিচারহীনতার কারণে ধর্ষকরা বেপরোয়া আর সারাদেশে নারীদের নিরাপত্তা বলতে কিছু নেই। নারী ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনার বিচার প্রায় হয় না বললেই চলে।

নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে ধর্ষকদের সবাইকে গ্রেফতার ও দ্রুত বিচারের দাবি জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 158
    Shares