মঙ্গলবার, জানুয়ারি ১৯

করোনাকালে নারী-শিশুর উপর সহিংসতার প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জে মানববন্ধন

এখানে শেয়ার বোতাম

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:: করোনাকালে নারী-শিশু ধর্ষণ-হত্যা-নির্যাতনের প্রতিবাদে সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরাম ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার যৌথ উদ্যোগে আজ বিকাল ৫ টায় নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মহিলা ফোরামের সংগঠক খায়রুন নাহারের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, সংহতি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন সিপিবি নারী সেলের সদস্য শাহানারা বেগম, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি সুলতানা আক্তার, সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান শিমূল, অর্থ সম্পাদক মুন্নি সরদার, মহিলা কলেজ শাখার সংগঠক নাসিমা আক্তার, মহিলা ফোরামের সংগঠক রাজলক্ষী।

নিখিল দাস বলেন, করোনাকালে নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বিশেষকরে পারিবারিক সহিংসতা ভয়াবহ মাত্রায় বৃদ্ধি পেয়েছে। শুধু মে মাসেই নারী ও শিশু নির্যাতন বেড়েছে ৩১%। ধর্ষণ, শিশু ধর্ষণ, বাল্য বিবাহ, বিবাহ বিচ্ছেদ, সাইবার ক্রাইম ও পাচারের মতো ঘটনা ঘটেছে এই করোনাকালে। বাংলাদেশে ধর্ষণের ঘটনা ৯৭% বিচারই হয় না। ধর্ষণের বিষয়টি প্রমাণ করা কঠিন কাজ, এখানে ভিকটিমকে প্রমাণ করতে হয় সে ধর্ষিত হয়েছে। ফলে ধর্ষণের বিচার চাইতে গিয়ে ধর্ষিতার নানা রকম হয়রানির শিকার হতে হয়। গত ২২ জুন শুধুমাত্র বিশ^বিদ্যালয়ে পড়ার অপরাধে শুশুরবাড়ির লোকরা ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্রী সুমাইয়া বেগমকে হত্যা করে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, নারীর প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি পাল্টাতে হবে। সম্পত্তিতে এখনো নারীর সমানাধিকার প্রতিষ্ঠা হয়নি। নারীর ক্ষমতায়নের ক্ষেত্রে রাষ্ট্রের নেতিবাচক মনোভাব কাজ করে। পর্ণোছবির ভয়াবহ বিস্তার নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা বৃদ্ধিতে সহায়তা করছে। বিচারহীনতার সংস্কৃতি অপরাধ বৃদ্ধি করছে। নারী ও শিশুর প্রতি সহিংসতা রোধে নারীসহ সর্বস্তরের জনগণকে রাজপথে নামতে হবে এবং সংগ্রাম গড়ে তুলতে হবে।

নেতৃবৃন্দ নারী ও শিশু নির্যাতনরোধে দায়ীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন।


এখানে শেয়ার বোতাম