মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪

কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হচ্ছে হজের আনুষ্ঠানিকতা

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: ৯০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম সৌদি আরবের বাইরে থেকে কেউ হজে অংশ নিতে পারছেন না।

করোনা মহামারীতে এবার ভিন্ন প্রেক্ষাপটে পালিত হচ্ছে পবিত্র হজ। গত ৯০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম সৌদি আরবের বাইরে থেকে কেউ হজে অংশ নিতে পারছেন না। দেশটিতে বসবাসকারী স্থানীয় ও বিদেশি মিলিয়ে মাত্র ১০ হাজারের মতো মানুষ অংশ নিচ্ছেন এবারের হজে।

প্রতি বছর হজ উপলক্ষ্যে সারাবিশ্ব থেকে পবিত্র নগরী মক্কা ও মদিনায় উপস্থিত হয় ২০ লাখেরও বেশি মুসল্লি। তবে এবারের চিত্র অনেকটাই ভিন্ন।

হজের আনুষ্ঠানিকতার অংশ হিসেবে আজ মক্কা থেকে মিনায় যাবেন হজ পালনকারীরা। হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরুর পর বুধবার সারাদিন মিনায় থেকে বৃহস্পতিবার আরাফাত ময়দানে যাবেন হজে অংশগ্রহণকারী। সেখানে দিনভর ইবাদত করে গুনাহ মাফের জন্য আল্লাহ’র জিকির করবেন। তারপর আরাফাত ময়দানে সূর্যাস্ত পর্যন্ত অবস্থান করে যাবেন মুজদালিফায়।

মুজদালিফায় রাত যাপন করে ঈদের দিন শয়তানকে পাথর ছুঁড়বেন হজব্রত পালনকারীরা। এরপর আল্লাহর সন্তষ্টির জন্য পশু কোরবানি দেবেন। তারপর মাথা মুন্ডন করে কাবা শরিফকে বিদায়ী তাওয়াফের মধ্য দিয়ে শেষ হবে হজের আনুষ্ঠানিকতা।

এবার হজে অংশগ্রহণকারীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তায় নেয়া হয়েছে বেশ কিছু পদক্ষেপ। করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে এবার প্রত্যেককে বাধ্যতামূলক মাস্ক ব্যবহার করতে হবে। হজের সময় কাবা শরিফ স্পর্শ বা চুম্বন করা যাবে না। বজায় রাখতে হবে দেড় মিটার শারীরিক দূরত্ব। তাওয়াফ, নামাজসহ প্রতিটি কাজেই শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।


এখানে শেয়ার বোতাম