বুধবার, ডিসেম্বর ২

এমসি ছাত্রাবাসে গণধর্ষণ: ছাত্রলীগ কর্মীর রুম থেকে অস্ত্র উদ্ধার

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 242
    Shares

সিলেট প্রতিনিধি:: সিলেট এমসি কলেজের ছাত্রাবাসে এক তরুণীকে গণধর্ষণের ঘটনায় শুক্রবার মধ্যরাতে ছাত্রাবাসটিতে অভিযান চালায় পুলিশ। গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত ছাত্রলীগ কর্মী সাইফুর রহমানের রুম থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্রসহ বেশ কিছু দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ।  এ সময় সাইফুরের রুম থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র, চারটি লম্বা দা, একটি ছুরি ও দুটি জিআই পাইপ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে ঘটনার পরপরই পুলিশের একাধিক দল গৃহবধূকে গণধর্ষণে অভিযুক্তদের ধরতে অভিযানে নেমেছে। তবে শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০ টা পর্যন্তও এ ঘটনায় অভিযুক্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

পুলিশ জানায়, অভিযানকালে একটি বিদেশি পিস্তল, চারটি রামদা, দুটি লোহার পাইপ উদ্ধার করা হয়। ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতা সাইফুর রহমানের কক্ষ থেকে এসব অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

অভিযানে অংশ নেওয়া শাহপরান থানার উপর পরিদর্শক (এসআই) লিপটন পুরকায়স্থ অস্ত্র উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শাহপরাণ থানার ওসি আব্দুল কাইয়ুম বলেন, যাদের কক্ষ থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা করা হবে।

প্রসঙ্গত, শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাত এমসি কলেজের হোস্টেলে এক তরুণীকে গণধর্ষণ করেছে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী।

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার (২৫ সেপ্টেম্বর) ধর্ষিত তরুণী তার স্বামীকে নিয়ে সিলেটের এমসি কলেজের ঘুরতে আসেন। এসময় ছাত্রলীগের ৫/৬ জন নেতাকর্মী তাদের জিম্মি করে ছাত্রাবাসে নিয়ে আসে। সেখানে দুজনকে মারধরের পর তরুণীকে ধর্ষণ করে।

খবর পেয়ে পুলিশ এসে ওই দম্পত্তিকে উদ্ধার করে। পরে তরুণীকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওসিসি সেন্টারে ভর্তি করা হয়।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 242
    Shares