রবিবার, জানুয়ারি ২৪

উদ্ধার করতে আসা জাহাজও পোস্তগোলা ব্রিজের নিচে আটকে গেল

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: রাজধানীর শ্যামবাজার এলাকা সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে অর্ধশতাধিক যাত্রী নিয়ে মর্নিং বার্ড নামের লঞ্চটি সোমবার (২৯ জুন) সকাল ৯টার দিকে ডুবে যায়। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৩০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তবে লঞ্চডুবির ঘটনার পরপরই নারায়ণগঞ্জ থেকে উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয় আসছিল বলে জানা গেছে। তবে বিকেল হলেও এখনও ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছেনি জাহাজটি। তবে উদ্ধারকারী এ জাহাজটি ঘটনাস্থলে আসার পথে পোস্তগোলা ব্রিজের নিচে আটকে গেছে বলে জানা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, নদীর পানির উচ্চতা বেশি হওয়ায় জাহাজটি আসতে পারছে না। উদ্ধারকারী জাহাজ এখনও ঘটনাস্থলে না পৌঁছতে পারায় সনাতন পদ্ধতিতে উদ্ধার কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

এদিকে, লঞ্চডুবির পরপরই ডুবে যাওয়া যাত্রীদের উদ্ধার করতে নামে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড, নৌবাহিনী ও সংশ্লিষ্ট সংস্থার ডুবুরিরা। উদ্ধারকাজ শুরুর পরপরই ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করে আনা হয়। কয়েক মিনিটের মধ্যেই সংখ্যাটি বেড়ে হলো ১৬। এরপর রুদ্ধশ্বাস অপেক্ষা। আবারও কয়েক মিনিটের মধ্যেই বাড়ল লাশের মিছিল। তুলে আনা হলো আরও ৯টি লাশ। এ পর্যন্ত মোট ৩০টি নিষ্প্রাণ দেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

এর আগে ঢাকা-চাঁদপুর রুটের ময়ূর-২ নামের একটি লঞ্চের ধাক্কায় কমপক্ষে ৫০ যাত্রী নিয়ে ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ রুটের মর্নিং বার্ড লঞ্চটি ডুবে যায়। লঞ্চটি থেকে কয়েকজন যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠলেও বেশ কয়েকজন নিখোঁজ রয়েছেন।


এখানে শেয়ার বোতাম