বুধবার, ডিসেম্বর ২

আশুলিয়ায় আটক ১০ শ্রমিক নেতার মুক্তি দাবি করেছে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক:: গার্মেন্টস শ্রমিক নেতা ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা অরবিন্দু বেপারী বিন্দুসহ ১০ জন শ্রমিক নেতাকে আশুলিয়া থানায় আটক রাখার ঘটনায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়ে অনতিবিলম্বে ১০ জন শ্রমিক নেতার মুক্তি দাবি করেছে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি।

বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক আজ এক বিবৃতিতে গার্মেন্টে শ্রমিক আন্দোলনের নেতা বিপ্লবী গার্মেন্টস শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি ও বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য অরবিন্দু বেপারী বিন্দুসহ জেনারেশন নেক্স ফ্যাশন লিঃ ১০ শ্রমিককে আটক রাখার ঘটনার তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছেন এবং বলেছেন গার্মেন্টস মালিকদের উস্কানীতে শ্রমিক নেতৃবৃন্দসহ সাধারণ শ্রমিকদেরকে এভাবে গ্রেফতার করা হয়েছে। তিনি উল্লেখ করেন শ্রমিকরা তাদের বকেয়া বেতন ভাতার দাবিতে ন্যায্য দাবি জানিয়ে আসছে তখন গার্মেন্টস মালিকদেরকে মজুরী পরিশোধে বাধ্য না করে শ্রমিকদের গ্রেফতারের ঘটনা ধারাবাহিক দমন-নিপীড়নেরই অংশ।

তিনি উল্লেখ করেন আজ দুপুরে শ্রমিক নেতাকে মুক্তি দেয়া হলেও ১০ জন নিরাপরাধ শ্রমিককে হয়রানিমূলক ভাংচুরের মামলায় কোর্টে চালান দেওয়া হয়েছে।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, অসহায় গার্মেন্টস শ্রমিক বাঁচার দাবিতে যখন কথা বলে তখন মালিক ও সরকার পক্ষ এটাকে ষড়যন্ত্র হিসেবে আখ্যায়িত করে। শ্রমিকদেরকে হুমকি প্রদান, দমন, নিপীড়ন ও গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে শিল্পাঞ্চলে এক ধরনের ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে।

তিনি উল্লেখ করেন ইন্ডাষ্ট্রিয়াল পুলিশসহ শিল্পাঞ্চল থানা পুলিশ দমন-পীড়নের মধ্য দিয়ে কার্যত মালিকদের পক্ষে অবস্থান নেয়। যে কারণে মালিকরা শ্রমিকদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের স্বেচ্ছাচারী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারে। শ্রম আইনের কোন তোয়াক্কা না করে মালিকরা যখন তখন শ্রমিক ছাটাইসহ শ্রমিকদের বিরুদ্ধে নানা ধরনের হয়রানিমূলক তৎপরতা অব্যাহত রাখে।

বিবৃতিতে তিনি গ্রেফতারকৃত ১০ জন শ্রমিকের অবিলম্বে মুক্তি দাবি করেন এবং শ্রমিক নেতা অরবিন্দু বেপারী বিন্দুসহ সংগ্রামী গার্মেন্টস শ্রমিক নেতৃবৃন্দের উপর হয়রানিমূক তৎপরতা বন্ধ করার দাবি জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম