শনিবার, মার্চ ৬
শীর্ষ সংবাদ

আবরার হত্যার প্রতিবাদে দিল্লিতে সার্কভুক্ত ৮ দেশের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

এখানে শেয়ার বোতাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে এবং বিচার দাবিতে নয়াদিল্লিতে মানববন্ধন-সমাবেশ করেছে সার্কের সদস্য ৮ দেশের শিক্ষার্থীরা।

বৃহস্পতিবার (১০ অক্টোবর) বিকেল ৪টার দিকে নয়াদিল্লির চানক্যপুরিতে অবস্থিত সাউথ এশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়(সার্ক ইউনিভার্সিট)- এর শিক্ষার্থীরা আবরার হত্যার প্রতিবাদে এই মানববন্ধন করে। এতে সার্কের সদস্য ৮ দেশের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

মানববন্ধনে তারা বিভিন্ন প্রতিবাদী স্লোগানের প্লেকার্ড নিয়ে আবরার হত্যার প্রতিবাদ জানান। মানববন্ধনে বাংলাদেশ, ভারত ও নেপালের শিক্ষার্থীরা বক্তব্য রাখেন।

মানববন্ধনের শুরুতে পিএচডি এর শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী, আবরার হত্যার ঘটনার বিবরণ তুলে ধরে জানান, এইরকম হত্যাকান্ডের নজির বাংলাদেশ ব্যতিত আর পৃথিবীর কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে কী না জানা নেই। এর তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন করাই যথেষ্ঠ নয়, তার সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানান।

ভারতের এক শিক্ষার্থী ত্রিদিব মুখার্জি তার বক্তব্যে বলেন, শুনেছি একটা ফেসবুক স্ট্যাটাসে জের ধরে তাকে ডেকে নিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। বাক স্বাধীনতার কতটা অবনতি ঘটলে এরকম ন্যাক্কারজনক ঘটনা একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটতে পারে তার নিয়ে সন্দেহ জ্ঞাপন করেন তিনি।

ভারতের শিক্ষার্থী তার বক্তব্যে দক্ষিণ এশিয়ার ছাত্ররাজনীতির সিস্টেমের সমালোচনা করেন এবং বাংলাদেশ সরকারকে আহ্বান জানান মানুষের বাকস্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ না করতে।

বাংলাদেশ থেকে আগত, আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের মাস্টার্সে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থী, ঢাবির সাবেক ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রাজিব তার বক্তব্যে ছাত্রলীগের সমালোচনা করে বলেন, ছাত্রলীগের এরকম বর্বর হত্যাকাণ্ড ৭১ কে স্মরণ করিয়ে দেয়।

তিনি বলেন, বাক স্বাধীনতা আমাদের রাজনৈতিক ও সাংবিধানিক অধিকার। এতে হস্তক্ষেপ করা সংবিধান পরিপন্থী। তিনি ভারতের সাথে সকল অসম চুক্তির সমালোচনা করে অবিলম্বে বাতিল করার আহ্বান জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম