বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪
শীর্ষ সংবাদ

আবরারের খুনিদের ফাঁসির দাবিতে রামগঞ্জে ইসলামী আন্দোলনের মানববন্ধন

এখানে শেয়ার বোতাম

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি:: বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীরা অমানবিকভাবে হত্যার প্রতিবাদে এবং খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসির দাবিতে এবং সারাদেশে সন্ত্রাস, দুর্নীতি, চাঁদাবাজ, নারী ও শিশু ধর্ষণ বন্ধের দাবিতে আজ (১২ অক্টোবর) শনিবার,ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ রামগঞ্জ উপজেলা শাখার উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

সভাপতি মাওলানা মোহাম্মদ হোসাইন’এর সভাপতিত্বে এবং সেক্রেটারী ডা: আব্দুর রহিমের সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় কমিটির ছাত্র ও যুব বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা মুফতি ইসহাক মোহাম্মদ আবুল খায়ের।

প্রধান অতিথি তার আলোচনায় বলেন, সকল মা বাবারই ইচ্ছা সন্তানকে বড় করে মানুষের মত মানুষ করে দেশের উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ হিসেবে গড়ে তুলবে।কিন্তু গত (৭ অক্টোবর) বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েটে) ঘটে গেলো এক বিদারক ঘটনা। ছাত্রলীগের সন্ত্রাসীদের অমানবিক নির্যাতনে প্রাণ দিতে হলো মেধাবী ছাত্র আবরারকে। তিনি আরো বলেন,দেশের পক্ষে কথা বলার কারণে আবরারকে হত্যা করা হয়েছে। তার স্ট্যাটাসে দেশবিরোধী কোনও কিছু ছিল না। আসলে আবরারকে হত্যা করা হয়নি, বরং গোটা বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের পতাকাকে হত্যা করা হয়েছে।আবরারের খুনিদের সর্বোচ্চ শাস্তি ফাঁসি না হওয়া পর্যন্ত ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ তথা সকল তৌহিদী জনতার আন্দোলন অব্যাহত থাকবে।

এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ লক্ষীপুর জেলা সভাপতি অনারারী ক্যাপ্টেন অবসর মোহাম্মদ ইব্রাহিম, সেক্রেটারী মাওলানা মোহাম্মদ মহিউদ্দিন, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন রামগঞ্জ উপজেলা সভাপতি ক্বারী আব্দুর রব আল-মামুন, ইসলামী আন্দোলন রামগঞ্জ উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মাকছুদুর রহমান,জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ রামগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মুফতী নুরুল্লাহ, ইসলামী যুব আন্দোলন রামগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মাওলানা সিদ্দিকুর রহমান, ইশা ছাত্র আন্দোলন রামগঞ্জ শহর সভাপতি হাফেজ নাসির উদ্দিন প্রমুখ।

বিশেষ অতিথি ক্যাপ্টেন ইব্রাহিম বলেন, সারাদেশে খুন-ঘুম, জুলুম নির্যাতন নারী ও শিশু ধর্ষণ নুনের চেয়েও সস্তা হয়ে গেছে। এখনো প্রতিদিন নারী ও শিশু নির্যাতন অব্যাহত রয়েছে। তিনি আরও বলেন, দুর্নীতি আজ মানুষের পেশায় পরিণত হয়েছে।সরকারি কর্মচারী থেকে শুরু করে তৃণমূল পর্যায়ের সকল ক্ষমতাসীন দলের নেতৃবৃন্দ দুর্নীতির সাথে সরাসরি জড়িত। এই দুর্নীতি থেকে দেশ ও মানুষকে রক্ষা করতে প্রয়োজন সচেতনতা ও সঠিক আইনের।

মানববন্ধনে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে জেলা সেক্রেটারি মাওলানা মহিউদ্দিন বলেন, সরকার আজ ভারতীয় প্রভুদের কাছে দেশ বিক্রির জন্য উঠে পড়ে লেগেছে।দেশের নদীগুলো আজ শুকিয়ে যাচ্ছে। নদীতে চর পড়ে গেছে। আমাদের পানি না দিয়ে দেশ কে মরুভূমিতে পরিণত করেছে। তিনি আরো বলেন, দেশবিরোধী এমন ষড়যন্ত্র দেশের সচেতন মানুষ এবং তৌহিদী জনতা মেনে নিবে না।আমরা এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি আশা করছি সারা দেশের মানুষ এই প্রতিবাদে একাত্মতা পোষণ করবেন এবং দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র রুখে দিবে।

আরো উপস্থিত ছিলেন,ইসলামী আন্দোলন, বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি, শ্রমিক আন্দোলন, যুব আন্দোলন, জাতীয় শিক্ষক ফোরাম, জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ এবং ইশা ছাত্র আন্দোলন সহ সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।


এখানে শেয়ার বোতাম