শুক্রবার, ডিসেম্বর ৪

আইপিএলে পাঞ্জাবের হারের পর ‘শর্ট রান’ নিয়ে তুমুল বিতর্ক

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 7
    Shares

অধিকার ডেস্ক :: আইপিএল শুরু হয়েছে দু’দিন হলো। অথচ এর মধ্যেই বিতর্কে পড়ে গেছেন আম্পায়াররা। গতকাল ১৯তম ওভারে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের একটি রান কেটে নেওয়া হয় শর্ট রানের কারণে। আর এই শর্ট রান নিয়েই চলছে তুমুল সমালোচনা। রান কেটে নেওয়াতেই টাই হওয়া ম্যাচটি চলে যায় সুপার ওভারে। পরে যে ম্যাচটি জিতে নেয় দিল্লি ক্যাপিটালস।

ঘটনাটা ঘটেছে পাঞ্জাবের ইনিংসের বেলায়। ১৯তম ওভারের তৃতীয় বলে মায়াঙ্ক আগারওয়াল শট নিয়ে দৌড়ে দুটি রান নিয়েছিলেন। কিন্তু স্কয়ার লেগ আম্পায়ার নিতিন মেনন সেখানে ‘শর্ট রান’ কল করে বসেন। তিনি জানান, ক্রিস জর্ডান প্রথম রানে প্রান্ত বদলের সময় ক্রিজে ব্যাট রাখেননি। ফলে একটি রান কেটে নেন তিনি। সেই একটি রান কম দেওয়াতেই ২০ ওভারে দিল্লির সমান ১৫৭ রান হয়ে যায় পাঞ্জাবের। নাহলে তিন বল হাতে রেখেই ম্যাচ জিতে যেতে পারতো পাঞ্জাব। কারণ শেষ দুই বলে দুটি উইকেট হারায় তারা। ফলে ম্যাচটি চলে যায় সুপার ওভারে। অবশ্য টিভি রিপ্লেতে স্পষ্টই দেখা যায়, জর্ডানের ব্যাট ক্রিজের ভেতরেই ছিল।

আর এই মুহূর্তটিকেই বলা হচ্ছে ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেওয়া মুহূর্ত। পাঞ্জাবের মালিক প্রীতি জিনতা ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন এমন ঘটনায়। সঙ্গে প্রযুক্তির ব্যবহারকে বাড়ানোর কথাও বলেছেন তিনি, ‘মহামারির মাঝেও আমি তুমুল আগ্রহ নিয়ে এখানে এসেছি। ৬দিন কোয়ারেন্টিনে থেকেছি। হাসি মুখে ৫বার করোনা পরীক্ষা দিয়েছি। কিন্তু একটি শর্ট রানের সিদ্ধান্ত আমাকে খুবই আঘাত করেছে। প্রযুক্তি ব্যবহার না করলে এর থাকার মানে কী? বিসিসিআই এর নতুন নিয়ম চালু করার সময় এসেছে। প্রতিবছর এমন হতে পারে না।’

এদিকে লেগ আম্পায়ারের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করেছে পাঞ্জাব। পাঞ্জাবের প্রধান নির্বাহী সতীশ মেনন বলেছেন, ‘ম্যাচ রেফারির কাছে আমরা আপিল করেছি। অবশ্য মনুষ্য ভুল হতেই পারে, সেটা আমরা বুঝি। কিন্তু বিশ্বমানের এমন টুর্নামেন্টে মনুষ্য সৃষ্ট ভুলের কোনও স্থান হতে পারে না। এই এক রানের ঘটনা আমাদের প্লে-অফে যাওয়ার বেলায় বাধা হয়ে দাঁড়াতে পারে।’


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 7
    Shares