শনিবার, নভেম্বর ২৮

অস্কারে ‘দ্য লাস্ট কালার’

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: সেলিব্রিটি শেফ বিকাশ খান্না পরিচালিত ও গুণী অভিনয়শিল্পী নীনা গুপ্তা অভিনীত ‘দ্য লাস্ট কালার’ জায়গা করে নিয়েছে অস্কারদৌড়ে। সেরা ফিচার ফিল্ম বিভাগের ছোট তালিকায় স্থান পেয়েছে ভারত ও যুক্তরাষ্ট্রের যৌথ প্রযোজনার এই ছবি। অস্কার মনোনয়নের তালিকার ছবি প্রকাশ করে বিকাশ খান্না টুইটারে এই খবর জানান।

প্রতিবছর জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে চূড়ান্ত মনোনয়ন প্রকাশ করার আগে একাডেমি পুরস্কার কর্তৃপক্ষ একটা ছোট তালিকা প্রকাশ করে। সেখানে প্রতিটি বিভাগ থেকে ১০টি ছবিকে মনোনয়নের জন্য বাছাই করা হয়। সেখান থেকে মনোনয়ন দেওয়া হয় পাঁচটি ছবিকে। ‘দ্য লাস্ট কালার’ চূড়ান্ত মনোনয়ন পেল কি না, তা জানা যাবে ২০২০ সালের ১৩ জানুয়ারি।

‘লা লাস্ট কালার’ ছবির মুখ্য চরিত্র দুটি। নুর আর ছোটি। নুর বিধবা, আর ছোটি ফুলবিক্রেতা। নুর সাদা থান কাপড় পরে, প্রথা অনুযায়ী বিধবাদের মনে রং থাকতে নেই। ছোটির স্বপ্ন, সে একদিন ফুল বিক্রি করে ৩০০ রুপি জমিয়ে ফেলবে। তারপর স্কুলে যাবে, পড়াশোনা করবে। শ্রেণিবিভেদ ভেঙে বন্ধুত্ব হয় এই দুটি মানুষের।

ছোটি চায় হোলির দিন গায়ে রং লাগুক নুরের। নুর চায় ছোটি একদিন লেখাপড়া করে অনেক ‘বড় কেউ’ হবে। হোলির দিন নুর মারা যায়। আর ছোটিকে পুলিশে ধরে নিয়ে জেলে ভরে রাখে। সেই দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ, যাকে ছোটি বলেছিল, ‘যে নিজের প্যান্ট ঠিক রাখতে পারে না, সে বারানাসের কী খেয়াল রাখবে?’

ছবিটি ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রের পাম স্প্রিংস ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়। ডালাস ইন্টারন্যাশনাল ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে সেরা ফিচার ছবির পুরস্কার জেতে; যদিও ভারতে বাণিজ্যিকভাবে মুক্তি পায়নি এই ছবি। ভারতে হল না পেলেও প্রদর্শিত হয়েছে মুম্বাই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে। তবে মুক্তি পেয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। ভ্যারাইটি জানিয়েছে, অস্কারদৌড়ের এ তালিকায় স্থান পাওয়ার জন্য যেকোনো ছবিকে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসের নির্দিষ্ট থিয়েটারে অন্তত সাত দিন থাকতে হয়।

এটি পরিচালক বিকাশ খান্নার প্রথম ছবি। এর আগে ‘হোলি কিচেনস’ নামে তথ্যচিত্রের সিরিজ প্রযোজনা করেছেন বিকাশ। টুইটারে অস্কারের শর্ট লিস্টে স্থান পাওয়ার খবর শেয়ার করে তিনি লেখেন, ‘নতুন বছর এর চেয়ে ভালোভাবে শুরু হতে পারে না।’ অন্যদিকে ‘বাধাই হো’খ্যাত নীনা গুপ্তা লিখেছেন, ‘অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি, আমি দারুণ আনন্দিত।’

৯২তম অস্কারের মঞ্চে ২৪টি শাখায় কারা হাসলেন শেষ হাসি, তা দেখা যাবে আগামী ৯ ফেব্রুয়ারি রাতে। বিশ্ব চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় এ আয়োজন যথারীতি অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায়, হলিউডের ডলবি থিয়েটারে।

শেফ, প্রযোজক ও পরিচালক বিকাশ খান্না জন্মেছিলেন পায়ের ত্রুটিকে সঙ্গী করে। ১৩ বছর বয়স পর্যন্ত দৌড়ানো তো দূরে থাক, ঠিকমতো হাঁটতে পারতেন না তিনি। অবসর কাটাত দাদির সঙ্গে, রান্নাঘরে। ১৭ বছর বয়সেই নানা রকমের রেসিপি তাঁর হাতের মুঠোয়।

এরপর রান্না নিয়ে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করতে যুক্তরাষ্ট্র। সেখানে গিয়ে ধীরে ধীরে তিনি জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন। তাঁর রান্নায় মুগ্ধ হয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার মতো রাজনীতিবিদেরা। তাঁকে দেখা গেছে ‘মাস্টারশেফ ইন্ডিয়া’, ‘মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়া’ বা ‘হেল’স কিচেন’–এর ছোট পর্দায়।


এখানে শেয়ার বোতাম