বৃহস্পতিবার, মার্চ ৪
শীর্ষ সংবাদ

অসাম্প্রদায়িক ও আধুনিক নাসিরনগর গড়ে তুলাই আমার স্বপ্নঃ ফরহাদ হোসেন এমপি

এখানে শেয়ার বোতাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :: ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গণপূর্ত অধিদপ্তর ও বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বাস্তবায়নে উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বদরুদ্দোজা মোহাম্মদ ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এমপি।

আজ ২৩ অক্টোবর বিকেলে নাসিরনগর ডিগ্রি মহাবিদ্যালয় সংলগ্ন মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে, নাসিরনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আজগর আলীর সভাপতিত্বে ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. আনিসুজ্জামান এর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইসলামী ফাউন্ডেশন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার উপ-পরিচালক মাওঃ আশিকুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বদরুদ্দোজা মোহাম্মদ ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এম পি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হাতে প্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে তারই সুযোগ্য কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে সারাদেশে ৫৬০ টি মডেল মসজিদ নির্মাণের যে প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে তা আজ নাসিরনগরে বাস্তবায়ন হতে যাচ্ছে। আপনারা জানেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২০১৪ সালে তার নির্বাচনী ইশতেহারে সারা বাংলাদেশে প্রত্যেকটি জেলা ও উপজেলায় একটি করে মডেল মসজিদ নির্মাণের কথা বলেছিলেন। তিনি তা বাস্তবায়ন করছেন।

তিনি বলেন, এ মডেল মসজিদে নারী-পুরুষের জন্য আলাদা ওযু ও নামায আদায়ের ব্যবস্থা থাকবে। এতে আরও থাকবে লাইব্রেরি, গবেষণা ও দীনি দাওয়া কার্যক্রম। এছাড়াও পবিত্র কুরআন হেফজ, শিশু শিক্ষা, অতিথিশালা, বিদেশি পর্যটকদের আবাসন, মৃতদেহ গোসলের ব্যবস্থা, হজ্জ যাত্রীদের নিবন্ধন, প্রশিক্ষণ ইত্যাদির সু-ব্যবস্থা, ইমাম-মুয়াজ্জিনদের আবাসন সহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কর্মকর্তা – কর্মচারীদের জন্য অফিসের ব্যবস্থা থাকবে। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে সকল ধর্মের উপসনালয়গুলো সংস্কার ও নতুন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নির্মাণের উদ্যোগও হাতে নেওয়া হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল ধর্মের মানুষের সহাবস্থান ও সম্প্রীতি বজায় রাখতে সবসময় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। আমার এই নাসিরনগরের মানুষ সাম্প্রদায়িকতা কখনও বিশ্বাস করেনা। তাই আমি নাসিরনগরকে অসাম্প্রদায়িক নাসিরনগর হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। সাম্প্রদায়িক সংকীর্ণতার উর্দ্ধে থেকে নীতি ও নৈতিকতার অনন্য এক উপজেলা হিসেবে জ্ঞান বিজ্ঞানে সমৃদ্ধ এক আধুনিক নাসিরনগর হিসেবে গড়ে তুলতে চেষ্টা করছি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা চেয়ারম্যান রাফি উদ্দিন আহমেদ, গণপূর্ত অধিদপ্তর ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নির্বাহী প্রকৌশলী ইমতিয়াজ আহমেদ, উপজেলা সহকারি কমিশনার ভূমি তাহমিনা আক্তার, ভাইস চেয়ারম্যান মহিলা রুবিনা আক্তার, ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দ ফজলে ইয়াজ আল হোসাইনী, থানা অফিসার ইনচার্জ সাজেদুর রহমান।


এখানে শেয়ার বোতাম