বুধবার, ডিসেম্বর ২

অনুপ্রবেশ ঠেকাতে ও চোরাচালান বন্ধে বিজিবিকে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: দেশের বিভিন্ন এলাকার সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি মাদক, চোরাচালান বন্ধ ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডকে (বিজিবি) কাজ করার নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার ‘বিজিবি দিবস-২০১৯’ উপলক্ষে পিলখানা সদর দপ্তরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ নির্দেশ দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আপনারা সততা, দক্ষতা ও দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে নিষ্ঠা ও আন্তরিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করবেন। দেশ অর্থনৈতিকভাবে যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে সেই ধারা যেন অব্যাহত থাকে।

তিনি বলেন, আপনারা বঙ্গবন্ধুর ভাষণ শুনেছেন। তৎকালীন ইপিআর সমাবেশ তিনি যে বক্তব্য দিয়েছেন এবং আপনাদের প্রতি যে নির্দেশ দিয়েছেন, তা যুগ যুগ ধরে চলবে। এ নির্দেশগুলো মেনে বাহিনীর দক্ষতার পরিচয় দেবেন এবং বিজিবির সুনাম অক্ষুণ্ন রাখবেন।

এ সময় সীমান্ত রক্ষার পাশাপাশি দুর্যোগকালীন উদ্ধার কার্যক্রম ও জনগণের জানমালের নিরাপত্তায় বিজিবির প্রত্যক্ষ ভূমিকার প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী সকাল ১০টায় পিলখানা সদর দপ্তরে আসেন। বিজিবি দিবস উপলক্ষে অনুষ্ঠানে মন্ত্রী, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা, উচ্চপদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা এবং কূটনৈতিক কোরের সদস্যরা উপস্থিত হন।

প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রধানমন্ত্রী প্যারেড ও কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং ৪টি কন্টিনজেন্টের সালাম গ্রহণ করেন। পরে বিজিবিতে বীরত্বপূর্ণ অবদানের জন্য বিজিবির ৬০ কর্মকর্তা এবং সদস্যকে পদক পরিয়ে দেন সরকারপ্রধান।

এ ছাড়া দুপুর ১২টা ২০ মিনিটে বীর-উত্তম ফজলুর রহমান খন্দকার মিলনায়তনে বিজিবি সদস্যদের বিশেষ দরবার গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী।


এখানে শেয়ার বোতাম