রবিবার, নভেম্বর ২৯

অনতিবিলম্বে মুনাফাখোর অসৎ সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দিন : সাইফুল হক

এখানে শেয়ার বোতাম
  • 36
    Shares

অধিকার ডেস্ক:: বাংলাদেশের বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক আজ এক বিবৃতিতে চাল- পেঁয়াজের দাম বৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন এবং বলেছেন যুক্তিসঙ্গত কোন কারণ ছাড়াই চাল, বিশেষ করে মোটা চালের দাম হঠাৎ করে বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। মোটা চালের দাম কেজি প্রতি ৫ টাকা থেকে ৮ টাকা পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে। গুজবের উপর নির্ভর করে ১০ দিনের পেঁয়াজর দাম প্রায় দ্বিগুন বৃদ্ধি করা হয়েছে। নিত্য প্রয়োজনীয় কয়েকটি পণ্যের দামও আকস্মিকভাবে বাড়ানো হয়েছে। তিনি বলেন, চাল পেয়াজের এই মূল্যবৃদ্ধির ফলে গরীব ও নিম্নআয়ের মানুষ সবচেয়ে বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এমনিতেই করোনা দুর্যোগ ও বন্যায় দেশের প্রায় ৬০ শতাংশ মানুষ কোন না কোনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত, গরীব ও নিম্নআয়ের মানুষের জীবন নির্বাহ করাই কঠিন, সেখানে পর্যাপ্ত মজুত ও সরবরাহ থাকার পরও মোটা চালের দাম বৃদ্ধি গরীব ও মেহনতিদের বেঁচে থাকাকেই কঠিন করে তুলছে। এই পরিস্থিতি চলতে দিলে স্বল্প আয়ের এক বড় অংশকে না খেয়ে বা আধা পেট খেয়ে থাকতে হবে। আরো কয়েক লক্ষ মানুষ দ্রুত দারিদ্র্য সীমার নীচে নেমে যাবে।

তিনি ক্ষোভের সাথে উল্লেখ করেন প্রয়োজনীয় তদারকি ও নজরদারি না থাকার কারনে মুনাফালোভী অসৎ সিণ্ডিকেটসমূহ স্বেচ্ছাচারীভাবে চাল- পেঁয়াজসহ খাদ্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি করে চলেছে। চাতালের মালিক, আড়তদার, ফড়িয়া ও একশ্রেণীর ব্যবসায়ীরা মানুষকে জিম্মি করে ফেলেছে। তিনি অনতিবিলম্বে অসৎ মুনাফাখোর সিণ্ডিকেটের বিরুদ্ধে কার্যকরি ব্যবস্থা গ্রহণ এবং বাজার নিয়ন্ত্রণে কঠোর নজরদারির দাবি জানান।

একই সাথে গ্রাম, শহর ও শিল্পাঞ্চলে গরীব ও নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালু করারও আহ্বান জানান। তিনি প্রতিটি পরিবারের কাছে খাদ্যপণ্য পৌছাতে জরুরী ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেবারও দাবি জানান।


এখানে শেয়ার বোতাম
  • 36
    Shares