মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৪

অধ্যক্ষকে পুকুরে ফেলার ঘটনায় দ্বিতীয় দিনের মতো ধর্মঘট

এখানে শেয়ার বোতাম

অধিকার ডেস্ক :: রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ ইঞ্জিনিয়ার ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে পুকুরে ফেলে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে দ্বিতীয় দিনের মতো শিক্ষক-কর্মচারীদের ধর্মঘট চলছে।

এ কারণে সোমবার সকাল থেকে কোনো ক্লাস পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়নি।

সকাল ১০টার পরে কিছু শিক্ষার্থী প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নিয়ে দোষীদের শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেন। তবে ফেসবুকসহ বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি দেয়ার কারণে অনেকেই ভয়ে আজ এই আন্দোলনে যোগ দেয়নি বলে জানিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষকরাও উপরের নির্দেশে মাঠে নেই বলে অভিযোগ তাদের।

অধ্যক্ষকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো তদন্ত কমিটির পাশাপাশি রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই দুটি কমিটির সদস্যরা সোমবার ঘটনাস্থল পরিদর্শনের পাশাপাশি অধ্যক্ষের সাথে কথা বলেছেন।

রাজশাহীর চন্দ্রীমা থানার ওসি গোলাম মোস্তফা জানান, রোববার রাতে চার জনসহ এ পর্যন্ত ৯ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এজাহারভুক্ত আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

গত শনিবার দুপুরে অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন জোহরের নামাজ শেষে মসজিদ থেকে তার নিজ কার্যালয়ে ফিরছিলেন। এ সময় কামাল হোসেন সৌরভের নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী অধ্যক্ষকে রাস্তা থেকে তুলে পাশের পুকুরে ফেলে দেয়।

এ ঘটনায় অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিন বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন।


এখানে শেয়ার বোতাম